ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

সমকামীদের ‘রংধনু পতাকা’ নিয়ে বিশ্বকাপ দেখতে দিবে না কাতার!

কাতার বিশ্বকাপে থাকছে না সমকামীদের রংধনু পতাকা। 

ডেস্ক রিপোর্ট

৩ এপ্রিল ২০২২, দুপুর ২:৫৬ সময়

[ 0x0.jpg ]
ইন্টারনেট

পশ্চিমা বিশ্বে অনেক আগেই ‘সমকামিতা’ বৈধতা পেয়েছে। কয়েক বছর আগে পাশের দেশ ভারতও  বৈধতা দিয়েছে। কিন্তু সমকামী হলেও নিজেকে তা বলে দাবি করা কোনো সেলেব্রিটির ক্ষেত্রে যেন বিরল এক ঘটনা। সমকামী ক্রিকেটার-ফুটবলারদের ক্ষেত্রেও দেখা যায়, ক্যারিয়ার শেষেই হয়তো কেউ জানাচ্ছেন, তিনি সমকামী। 

যদিও ইউরোপিয়ান ফুটবলে সমকামীদের সমর্থন জানাতে সম্ভব্য সবকিছুই করা হচ্ছে। সমকামিতা ভীতি দূর করার চেষ্টায় জুতার ফিতা, পতাকা ও স্টেডিয়াম জুড়ে রংধনু প্রদর্শন এখন নিত্য-নৈমিত্তিক ঘটনা।

সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ডের ক্লাবগুলি তো সমকামিতাকে সমর্থন জানাতে অবিরাম ক্যাম্পেইন করে যাচ্ছে। জার্মান বুন্দেস লীগা ও স্প্যানিশ লা লিগাও আছে এই ক্যাম্পেইনের প্রথম সারিতে। 

ইউরোপের ফুটবলে যাই হোক, ২০২২ বিশ্বকাপে সম কামিতাকে সমর্থন জানাতে স্টোডিয়ামে রংধনু প্রদর্শনে সুযোগ পাবে না। মূলত, আগামী বিশ্বকাপে আয়োজক দেশ কাতারে ‘সমকামিতা’কে অপরাধ বলে বিবেচনা করায় সমকামীদের প্রতীকী পতাকা রংধনুকে উড়তে দেবে না দেশটি। 

কাতার বিশ্বকাপে সমকামীদের উপস্থিতিতে নিষেধাজ্ঞা না দিলেও দেশটি নিরাপত্তার স্বার্থের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে বলে জানিয়েছে ২০২২ বিশ্বকাপের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা মেজর জেনারেল আব্দুল আজিজ আবদুল্লাহ আল আনসারি। 

ধর্মীয় রক্ষণশীল হিসেবে পরিচিত কাতারে ‘সমকামীতা’ একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যেহেতু, বিশ্বকাপ একটি বৈশ্বিক আসর; তাই কাতার বিশ্বকাপে সমকামিদের কোন বাধা দিবে না। জেনারেল আব্দুল আজিজ আব্দুল্লাহ আল আনসারি বলেছেন,

“যদি সমকামীরা তাদের স্বাধীনতার প্রতীক রংধনু পতাকা তুলে ধরে, তার থেকে সেটি নিয়ে নেয়া হবে। সত্যিই এটি তাকে অপমান করতে নয়, বরং তাকে রক্ষা করতে এ ব্যবস্থা। কারণ আমি না হলেও, তার আশেপাশে অন্য কেউ তাদের আক্রমণ করতে পারে। সব মানুষের আচরণের নিশ্চয়তা দিতে পারি না। তাদের বলবো, দয়া করে মাঠে পতাকা তোলার দরকার নেই।”

“আপনারা সমকামীদের সম্পর্কে দৃষ্টিভঙ্গি প্রদর্শন করতে চাইলে এমন সমাজে করুন, যেখানে এটি গ্রহণ করা হয়। আমরা জানি তাদের অনেকেই টিকেট পেয়েছে, এখানে খেলা দেখতে এসেছে, প্রদর্শন করতে নয়। খেলা দেখুন। এটা ভালো। দয়া করে পুরো সমাজকে অপমান করবেন না।”

চলতি বছর নভেম্বর-ডিসেম্বরে কাতারে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ফুটবল। ইতিহাসে এবারই প্রথমবার মধ্যপ্রাচ্যে হচ্ছে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। ইতোমধ্যে, বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বের ড্রও অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে।