ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

পাকিস্তানের স্পিনারদের 'দুধভাত' বলছেন অস্ট্রেলিয়ার হেইসম্যান

পাকিস্তানের স্পিন বিভাগকে দুর্বল বলে আখ্যায়িত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার স্বনামধন্য ধারাভাষ্যকার মাইক হেইসম্যান।

ডেস্ক রিপোর্ট

৯ এপ্রিল ২০২২, সকাল ৯:২৮ সময়

[ InShot_20220409_092311982.jpg ]
টুইটার

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজে একদমই সাদামাটা ছিল পাকিস্তানের স্পিনারদের পারফরম্যান্স। উল্টো ঘরের মাঠে নির্বিষ বোলিংয়ে একাধিক অনাকাঙ্ক্ষিত রেকর্ডে নাম জড়িয়েছে সাজিদ খান, নওমান আলীরা। 

সেই সিরিজের তিন ম্যাচে সর্বসাকুল্যে ৯ উইকেট নিয়েছেন নওমান, যার মধ্যে আবার ৬ উইকেটই এসেছিলো প্রথম টেস্টে। অন্যদিকে সমানসংখ্যক ম্যাচে ১১৯ গড়ে ৪ উইকেট পেয়েছিলেন সাজিদ। স্পিনারদের এমন ব্যর্থতার প্রভাব পড়েছে পাকিস্তানের দলীয় পারফরম্যান্সেও, তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০ ব্যবধানে হেরেছে স্বাগতিকরা। 

এমন হতশ্রী বোলিং দেখে পাকিস্তানের স্পিন বিভাগে ঘাটতি আছে বলে মন্তব্য করেছেন অস্ট্রেলিয়ার স্বনামধন্য ধারাভাষ্যকার মাইক হেইসম্যান। পাশাপাশি সাজিদ খান, নওমান আলীদের সামর্থ্য নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। সম্প্রতি 'ক্রিকউইক' কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ প্রসঙ্গে মাইক হেইসম্যান বলেন,

আমার মতে, (পাকিস্তানের) স্পিন বিভাগ একটু দুর্বল। পাকিস্তানের অতীতের সেরা স্পিনারদের দিকে তাকালে তাদের এর চেয়ে অনেক ভালো হওয়া উচিত। অতীতের স্পিনাররা ম্যাচ উইনার ছিল। তারা কেবল চতুর্থ ইনিংসে শক্তিশালী ছিল না, তারা টেস্ট ম্যাচের যে কোনও দিনে আপনাকে ম্যাচ জেতাতে পারতো।

পাকিস্তানের স্পিনারদের সমালোচনার বিপরীতে অজি স্পিনার নাথান লায়নকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন হেইসম্যান। তিনি বলেন,

আপনি নাথান লায়নের দিকে তাকান এবং তিনি সবসময় খেলায় ছিলেন। পাকিস্তানের স্পিনাররা ছিলো ঠিক তার উল্টো। তারা তাদের বোলিংয়ে অজি ব্যাটারদের পর্যাপ্ত প্রশ্ন্বের মুখে ফেলতে পারেনি, যা টেস্ট ফরম্যাটে প্রয়োজন।

 স্পিন বিভাগের ঘাটতি মেটাতে পাকিস্তানকে প্রতিভাবান নতুন স্পিনার খুঁজে বের করার পরামর্শ দিয়েছেন অজি ধারাভাষ্যকার। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 

পাকিস্তানের সেই (স্পিন) বিভাগে ঘাটতি রয়েছে এবং কোনওভাবে তাদের প্রতিভাবান স্পিনারদের খুঁজে বের করতে হবে। তারা তরুণ ছেলে হতে পারে, তবে মূল বিষয় হল আন্তর্জাতিক খেলার জন্য তাদের প্রস্তুত করা।