ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

রিয়ালের বিপক্ষে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ‘সাহস’ কারও নেই?

রিয়ালের কাছে হারের পর ‘গুরুতর’ প্রশ্ন তুললেন চেলসি কোচ টমাস টুখেল।

ডেস্ক রিপোর্ট

১৩ এপ্রিল ২০২২, দুপুর ১:২ সময়

[ GettyImages-1239940109.jpg ]
ইন্টারনেট

ঘরের মাঠে বড় হারে চ্যাম্পিয়নস লিগে টিকে থাকার আশা একেবারেই ক্ষীণ ছিল চেলসির। যদিও ব্লুজ কোচ জানিয়ে দিয়েছিলেন, হাল ছাড়বেন না তিনি। শেষ পর্যন্ত লড়াই করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন টমাস টুখেল। 

গুরুর কথা শুনে রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে গিয়ে দুর্দান্ত এক পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছে চেলসি। নিজেদের মাঠে ৩-১ গোলে হারে প্রতিপক্ষের মাঠে দ্রুতই ঘুরে দাঁড়ায় দলটি। এক সময় এগিয়ে গিয়ে দারুণ অবিশ্বাস্য  প্রত্যাবর্তনে গল্প লেখার স্বপ্ন দেখেছিলো তারা। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত পেরে উঠেনি তারা। রিয়ালের হয়ে করিম বেনজেমার করা গোলে জিতেও আসরের শেষ আট থেকেই বিদায় নিয়েছে লন্ডনের প্রতিনিধিরা।

গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে রিয়াল মাদ্রিদের ঘরের মাঠ স্যান্তিয়াগো বার্নাব্যু কোয়ার্টার-ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ৩-২ গোলে জিতেছে চেলসি। তবে, প্রথম লেগের ৩-১ ব্যবধানে জয়ের সুবাদে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৪ গোলের অগ্রগামিতায় ফাইনালে উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ-ই। 

দুর্দান্ত খেলেও শেষ পর্যন্ত জিততে শেষ আটের বাধা পেরিয়ে আসতে না পারায় রেফারি মারচিনিয়াকের ওপরই চটেছেন চেলসি কোচ। টমাস টুখেলের প্রশ্ন তুলেছেন, রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাহস আছে কিনা। ৪৮ বছর বয়সী এই কোচ ম্যাচ শেষে কার্লো আনচেলত্তি সঙ্গে রেফারির হাসি-তামাশা নিয়েও ক্ষোভ ঝেড়েছেন।

“আমি সত্যিই রেফারির ওপর মনঃক্ষুণ্ন হয়েছি। তার সঙ্গে আমার সহকর্মী কার্লো আনচেলত্তির বেশ ভালো সময় কেটেছে। কিন্তু তাকে ম্যাচের জন্য ধন্যবাদ জানাতে গিয়ে দেখি, প্রতিপক্ষ দলের কোচের সঙ্গে হাসি-তামাশা করছেন।”

“আমার মতে, শেষ বাঁশি বাজার পর এমন কিছু করার জন্য এটা ভুল সময়। কোচ হিসেবে যদি দেখি প্রতিপক্ষ দলের কোচের সঙ্গে রেফারি এতটা সহজভাবে মিশছেন তাহলে সেটা কোনোভাবেই ভালো লাগবে না এবং তাকে সেটাই বলেছি।”

বার্নাব্যুতে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকার পর আরও আরেকটি গোল করেছিল চেলসি। যদিও মার্কো আলোন্সোর গোলটি হ্যান্ডবলের অভিযোগে বাতিল করে দেন রেফারি। ম্যাচ রেফারির এমন সিদ্ধান্তেরও ক্ষোভ ঝাড়েন টমাস টুখেল। জার্মান কোচ প্রশ্ন তুলেন, রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাহস সবার থাকে কিনা!

"রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে খেললে মনে হয় না সবার সেই (বিপক্ষে সিদ্ধান্ত নেওয়ার) সাহসটা আছে। প্রথম লেগ ও দ্বিতীয় লেগে এমন দেখা গেছে। রেফারিকে বলেছি যে, সে নিজে গিয়ে না (ভিডিও রিপ্লে) দেখায় প্রচণ্ড হতাশ হয়েছি।”