ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

মুমিনুলক সরিয়ে সাকিবকে টেস্ট অধিনায়ক করছে বিসিবি !

মুমিনুল হককে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে কাকে দেওয়া হবে নতুন দ্বায়িত্ব। বিসিবির পছন্দ সাকিব আল হাসান। বিসিবির ভেতরের খবর, সাকিব সম্মতি দিয়েছেন বোর্ড সভাপতির কাছে

ডেস্ক রিপোর্ট

৩০ মে ২০২২, রাত ১০:৪৬ সময়

[ 236658be-d62a-4805-9fee-b89ba85523f3.jpg ]

বড় কোন ধরনের সিদ্ধান্তে বদল না আসলে বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়কত্বে পরিবর্তন আসতে চলেছে। বর্তমান অধিনায়ক মুমিনুল হককে টেস্ট অধিনায়ক থেকে সরিয়ে দিতে মোটামুটি একমত বিসিবির উপরমহল। টিম ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে এর মধ্যে মুমিনুল হকের সাথে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়েছে। 

হঠাৎ যেন ঝড় উঠলো মুমিনুল হকের সামনে, যেমনটা উঠেছিল মুমিনুল হককে টেস্ট অধিনায়কত্ব দেবার সময়ও। মুমিনুল হক নিজেও প্রস্তুত ছিলেন না এমন সিদ্ধান্তে। সেসময় মুমিনুল হক বলেছিলেন, “  ‘সত্যি কথা বলতে কি আমি অধিনায়কত্ব করবো, সেজন্য মোটেও প্রস্তুতই ছিলাম না। কখনো ভাবিওনি বাংলাদেশের অধিনায়ক হবো। ” 

আরো একবার এমন অপ্রস্তুত সম্ভাবনার কথা জানালেন মুমিনুল হক। টেস্ট ক্রিকেটে যেন ধ্রুবতারার মতই আর্বিভাব ঘটেছিল মুমিনুল হকের। ১১ টি সেঞ্চুরি তো মুখের কথা না, সেই ব্যাটসম্যান যেন খুঁজে পাওয়ায় কঠিন। বিসিবিও তাই মুমিনুলের কাছ থেকে অধিনায়কত্ব এর বোঝা নামিয়ে ফেলতে চান। 

জালাল ইউনুস যেমন আজ বললেন, ‘অধিনায়কত্ব বাড়তি একটা চাপ অবশ্যই। ব্যাটিংয়েও এর একটা প্রভাব পড়তে পারে। হয়তো সে সিদ্ধান্ত নেবে কোনটা হলে ওর ভালো হয়।’‘ব্যাটিং করার সময় সে রান না পাওয়ায় হয়তো বাকিদের অনুপ্রাণিত করতে সমস্যা হচ্ছে। যেহেতু রান করছে না, একটা হীনমন্যতা থাকতে পারে। সেটা (অধিনায়কত্ব) থেকেই হয়তো চাপ বেশি হয়ে যাচ্ছে।’ – জালাল ইউনুস।

কিন্তু মুমিনুল হককে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে কাকে দেওয়া হবে নতুন দ্বায়িত্ব। বিসিবির পছন্দ সাকিব আল হাসান। বিসিবির ভেতরের খবর, সাকিব সম্মতি দিয়েছেন বোর্ড সভাপতির কাছে। কিন্তু মুমিনুলকে নিজ থেকে সিদ্ধান্ত নেবার পক্ষে মত বিসিবির। সাকিবও রাজী থাকবার কারনে বিসিবিও আর দেরী করতে চাইছেনা এই ব্যাপারে। 

আসছে ২ জুন বিশেষ বোর্ড সভার পর টেস্ট অধিনায়কত্ব নিয়ে নতুন ঘোষণা আসতে পারে বোর্ডের পক্ষ থেকে। মুমিনুল হকের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স অবশ্য মুমিনুল হককে নিয়ে ভাবতে বাধ্য করেছে। শেষ দশ ইনিংসে মুমিনুল হকের রান মোটে ৭৪। 

অধিনায়ক মুমিনুলের কাছ থেকে সেঞ্চুরি এসেছে মোট তিনটি। অপরদিকে মুমিনুল আগে সেঞ্চুরি পেয়েছেন ৮ টি। ক্যাপ্টেন মুমিনুল হকের রানের গড়টা মাত্র ৩১ যেখানে এর আগে মুমিনুল হকের গড় ছিল প্রায় ৪২।