ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

অপ্রতিরোধ্য ব্রাজিল জিতেছে বিরাট ব্যবধানে

বিশ্লেষকদের মতে সমালোচনা হচ্ছে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ড লাইন নিয়ে। দানি আলভেজ, সিলভা আর সান্দ্রোসকে নিয়ে সাঁজানো ডিফেন্স বড় পরাশক্তির বিপক্ষে কেমন ফল আনবে সেটি নিয়ে চিন্তার জায়গা আছে বলেই মত দিয়েছেন অনেকে

ডেস্ক রিপোর্ট

৩ জুন ২০২২, রাত ১২:৩৭ সময়

[ 2bb70615-8a43-430e-9f9e-f8568c8c4b7b.jpg ]

ম্যাচের শুরুর বিশ মিনিট দেখলে ব্রাজিলিয়ান সমর্থকদের কষ্ট পেতে হতে পারে। দক্ষিন কোরিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের শুরুটা ছিল রীতিমত অগোছালো। তবে এরপর ব্রাজিল বিরাট ব্যবধানে হারিয়েছে নিজেদের ফিরে পেয়েই, নেইমার করেছেন জোড়া গোল।   দেশের হয়ে পেলের ৭৭ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করতে ৪ গোল দূরত্বে অবস্থান করছেন এই ব্রাজিলিয়ান সেনসেশন। ১১৮ ম্যাচে নেইমারের গোল এখন ৭৩ টি। 

আর্জেন্টিনার পর ব্রাজিল, যেন লাটিনের সাম্রাজ্য চলছেই। ব্রাজিলের এই দলটা অবিশ্বাস্য রকমের শক্তিশালী যেখানে ভিনিসিয়াসের মত তারকাকেও বেঞ্চে বসে থাকতে হয়। ম্যাচে নেইমারের দারুন পারফরমেন্স নিশ্চিতভাবেই স্বস্তি দিয়েছে কোচ তিতেকে। নেইমারকে কেন্দ্র করেই হেক্সা জেতার স্বপ্নে বিভর ব্রাজিল। 

ব্রাজিলের মোট গোটা পাঁচেক গোলের দুইটি এসেছে পেনাল্টি থেকে, যেটা করেছেন নেইমার। প্রথম সাত মিনিটে ব্রাজিল লিড পেলেও সমতায় ফিরতে খুব বেশি সময় নেয়নি কোরিয়াও। ম্যাচের ৩১ মিনিটে সমতা ফেরায় দক্ষিন কোরিয়া। বদলি হিসেবে নেমে কুতিনহো এবং জেসুস করেছেন একটি করে গোল। 

তবে বিশ্লেষকদের মতে সমালোচনা হচ্ছে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ড লাইন নিয়ে। দানি আলভেজ, সিলভা আর সান্দ্রোসকে নিয়ে সাঁজানো ডিফেন্স বড় পরাশক্তির বিপক্ষে কেমন ফল আনবে সেটি নিয়ে চিন্তার জায়গা আছে বলেই মত দিয়েছেন অনেকে। মিলিতোর মত পরীক্ষিত ডিফেন্ডারকে বেঞ্চে রাখাটাকেও যুক্তিযুক্ত মনে হয়নি অনেকের কাছেই।

তবে প্রীতি ম্যাচে সাধারনত যে কোন ফুটবলারকে বাজিয়ে দেখতে পারে ব্রাজিল। আগামী সোমবার টোকিওতে জাপানের বিপক্ষে মাঠে নামবে ব্রাজিল। সেদিন আবার ভিন্ন একাদশে দেখা যেতেই পারে। তবে রিয়াল মাদ্রিদের বড় ভরসা হয়ে ওঠা ভিনিসিয়াসকে শুরু থেকে মাঠে না নামানোতে সমালোচিত হচ্ছেন তিতে।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সবার আগে কোয়ালিফাই করা ব্রাজিল রয়েছে ফিফা র‌্যাঙ্কিং এর একদম এক নম্বরে। নেইমার ফর্মে থাকলে ব্রাজিলকে নিয়ে আলাদা করে স্বপ্ন দেখবার সুযোগ সাম্বার ভক্তদের। অতীতের কয়েক বছরের মধ্যে এবারের ব্রাজিল দল অনেক বেশি শক্তিশালী বলে অনেকেই কাতার বিশ্বকাপের সবথেকে ফেভারিট হিসেবেই ভাবছে ব্রাজিলকে।