ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

আইসিসির নতুন চক্রে সবচেয়ে বেশি ৫৯ ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ

আইসিসির নতুন চক্রে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪৪ ন্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে টাইগাররা।

ডেস্ক রিপোর্ট

১৮ জুলাই ২০২২, রাত ১১:২০ সময়

টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এখনও নিজেদের ভালোভাবে মেলে ধরতে পারেনি বাংলাদেশ। সেই তুলনায় এক দিনের ক্রিকেট-ই যেন বেশি স্বাচ্ছন্দ্যে  টাইগাররা। কয়দিন আগে  ক্যারিবিয়ান দ্বীপে গিয়ে স্বাগতিকদের ‘ধবলধোলাই’ করে আরও একবার তা প্রমাণ করল লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। 

ওয়ানডে ক্রিকেটে নিজেদের জাত আরও ভালোভাবে চেনাতে আরো বড় পরিসরে সুযোগ আসছে টাইগাদের সামনে।কেননা, আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্ল্যান (এফটিপি) তে সর্বাধিক ৫৯টি ওয়ানডে ম্যাচ বাংলাদেশই খেলতে যাচ্ছে। আইসিসির নতুন চক্রে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও টাইগারদের রয়েছে ব্যস্ত সূচি। 

আজ (সোমবার) আইসিসির নতুন চক্র পর্যালোচনা করে প্রতিবেদন প্রকাশ করে ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো। 

সেখানেই দেখা গেছে, আগামী চার বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ ব্যস্ত সময় পার করবে বাংলাদেশ। আইসিসির নতুন চক্রে আগামী ৪ বছরে টাইগাররা ৩৪ টেস্ট, ৫৯ ওয়ানডে এবং ৫১ টি-টোয়েন্টি খেলবে। 

ইএসপিএনক্রিকইনফো জানায়, আগামী চার বছরে সবমিলিয়ে ১৪৪ ম্যাচ অংশগ্রহণ করবে বাংলাদেশ দল। টাইগারদের চেয়ে কেবল ওয়েস্ট ইন্ডিজই ১৪৬টি ম্যাচ বেশি খেলবে। 

আইসিসির নতুন চক্রে টেস্ট ক্রিকেটেও চতুর্থ সর্বোচ্চ ৩৪টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। টাইগার দের চেয়ে কেবল ইংল্যান্ড (৪২), অস্ট্রেলিয়া (৪১) ও  ভারত (৩৮) বেশি টেস্ট ম্যাচ খেলবে। এছাড়া, নিউ জিল্যান্ড টেস্ট ম্যাচ খেলবে ৩২টি। 

দীর্ঘদিন ধরেই ক্রিকেটের মোড়ল দেশগুলোর সঙ্গে  টেস্ট খেলার সুযোগ পাচ্ছে না বাংলাদেশ। আগামী চার বছর এফটিপিতে সেই খরাও কেটে যাবে টাইগারদের। কেননা, এই সময়ে বাংলাদেশ ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ খেলবে। তাছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকা, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও এসময় টেস্ট খেলবে টাইগাররা। 

২০২৩-২৫ সালের সূচিতে ঘরের মাঠে বাংলাদেশ লড়বে নিউজিল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। অপরদিকে ভারত, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে তাদের মাঠে খেলবে টাইগাররা।

২০২৫-২৭ দ্বিতীয় চক্রে ঘরের মাঠে বাংলাদেশ লড়বে ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে। আর অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার মাঠে খেলতে যাবে টাইগাররা।