ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

দেম্বেলের ‘মেসি স্টাইলে’ জোড়া গোলেও জিতেনি বার্সেলোনা

জয় পায়নি রিয়াল মাদ্রিদও।

ডেস্ক রিপোর্ট

২৭ জুলাই ২০২২, দুপুর ১২:২৮ সময়

[ Screenshot_20220727-122313_Gallery.jpg ]

২০০৭ সালে কোপা ডেল রেতে হেতাফের বিপক্ষে ছয়জন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে লিওনেল মেসি অবিশ্বাস্য যে গোলটা করেছিলেন, সেটা এখনো মুগ্ধ করে ফুটবলপ্রেমীদের। সেই গোলটা করেই তিনি প্রমাণ করেছিলেন ‘নতুন ম্যারাডোনা’ তকমার যথার্থতা। ১৯৮৬ সালে ম্যারাডোনার করা সেই শতাব্দী-সের গোলটি সঙ্গে অনেক মিলই খুঁজে পাওয়া যায় মেসির ২০০৭ সালের গোলটার।

এরপর থেকেই মেসি মানেই যেন নান্দনিক ড্রিবলিংয়ে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের ছিটকে ফেলে করা গোল। ছেলেবেলার প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনার হয়েও এমন গোল অসংখ্য করেছেন মেসি।বর্নাট্য ক্যারিয়ারে আর্জেন্টাইন এই অধিনায়কের এমন চোখধাঁধানো গোলের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। 

২০২০ সালে চোখের জল ফেলে বার্সাকে বিদায় বলেন মেসি। অনেক দিন পর কাতালানদের জার্সি গায়ে ফের সাতবারের বর্ষসেরা ফুটবলারকে মনে করিয়ে দিলেন উসমান ডেম্বেলে। প্রাক-মৌসুমে প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে জুভেন্টাসের বিপক্ষে ফরাসি তারকা জোড়া গোল করেছেন মেসি স্টাইলেই। যদিও ২৫ বছর বয়সী তারকার দুই গোলেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি বার্সেলোনা।

আজ (বুধবার) টেক্সাসে প্রাক মৌসুমে নিজেদের সব শেষ ম্যাচে জুভেন্টাসের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করেছে বার্সেলোনা। বার্সার হয়ে জোড়া গোল করেছেন উসমান ডেম্বেলে। তুরিনের বুড়িদের হয়ে তা ফের দিয়েছেন ময়েস কেন। প্রাক-মৌসুমে টানা দুই জয়ের পর ড্র করল কাতালানরা। 

এল ক্লাসিকো জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে মাঠে নামা বার্সা এদিনও গোটা ম্যাচে দাপট দেখিয়েছে। পুরো ম্যাচে প্রায় ৬০ শতাংশ সময় বলে দখল ছিল জাভি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে। গোলের জন্য ২০টি শট করে তারা। যার মধ্যে লক্ষ্য বরাবর ছিল সাতটি। অন্যদিকে আটটি শট করে চারটি লক্ষ্যে রাখতে পেরেছে জুভেন্টাস। দুই দলই পেয়েছে দুইটি করে গোল।

ম্যাচের প্রথম গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে ৩৪ মিনিট পর্যন্ত। সার্জিনো ডেস্টের অ্যাসিস্ট থেকে দুজন কে কাটিয়ে দুর্দান্ত গোল করে দেম্বেলে। মিনিট পাঁচেক পর হুয়ান কুয়াড্রাডোর পাস থেকে সেই গোল শোধ করেন কেন। 

তবে এক মিনিট পর আবারও বার্সাকে এগিয়ে দেন দেম্বেলে। এবারও মেসির মতোই ডি-বক্সে জুভেন্টাস ডিফেন্ডার কাটিয়ে গোল করেন ফরাসি তারকা।

২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বার্সেলোনা। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ম্যাচে সমতা আনতে মাত্র ছয় মিনিট লেগেছে জুভেন্টাসের। এবার ম্যানুয়েল লোকাতেলির এগিয়ে দেওয়া বল ধরে গোল করেন ইতালিয়ান তরুণ ফরোয়ার্ড।

আগের ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও শুরু থেকে খেলেছেন বার্সেলোনার নতুন তারকা ফরোয়ার্ড রবার্ট লেওয়ানডস্কি। তবে নিজের দ্বিতীয় ম্যাচেও গোলের দেখা পাননি এ পোলিশ তারকা। আগামী রোববার নিউইয়র্ক রেড বুলসের বিপক্ষে আবারও বার্সার হয়ে মাঠে নামবেন তিনি।

এদিকে, বার্সেলোনার মতো জিততে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদও। ক্লাব আমেরিকার বিপক্ষে ২-২ গোলের ড্র করেছে লস ব্লাংকোসরা। রিয়ালের হয়ে গোল করেছেন করিম বেনজেমা ও ইডেন হ্যাজার্ড। 

মার্টিন ও ফিডালগোর গোলে সমতায় ম্যাচ শেষ করে ক্লাব আমেরিকা। এই নিয়ে প্রাক-মৌসুমে দুই ম্যাচ খেলেও জিততে পারেনি ইউরোপ চ্যাম্পিয়নরা।আগামী রোববার (৩১ জুলাই) জুভেন্টাসের বিপক্ষে খেলতে নামবে কার্লো আনচেলত্তির দল।