ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

কাপুরুষোচিত ক্রিকেটে ওয়ানডেতেও অন্ধকারে বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও হেরে গেছে বাংলাদেশ। সিরিজ জিতেছে সিকান্দার রাজারা

ডেস্ক রিপোর্ট

৭ আগস্ট ২০২২, রাত ৯:৪০ সময়

[ IMG-20220805-WA0134.jpg ]

সবথেকে বেশি ফিল্ডিং খারাপ করে কোন দল - এমন কোন জরিপ করা হলে অবশ্যই বাংলাদেশ দল শীর্ষে থাকবে। ২৯০ রান করার পর বাংলাদেশ দল যেভাবে ফিল্ডিংয়ে ক্যাচ মিস, রান আউটের সুযোগ মিস করেছে তাতে জিম্বাবুয়ের কাছে এই রান খু্বই সহজ হয়ে গেছে। সিকান্দার রাজা যেন ভারী হয়ে আছড়ে পরেছেন পুরো বাঘেদের হয়ে। 

পরপর দুই ম্যাচেই অপরাজিত সিকান্দার রাজা। হাসান মাহমুদ এবং মেহেদী মিরাজের চাপে শুরুতেই তিন উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল জিম্বাবুয়ে। সেখান থেকে অধিনায়ক চাকাভার কি অনবদ্য ইনিংস! ৭৫ বলে ১০২ রানের ইনিংসটা জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের মনে রাখা উচিত অনেকদিন। সেই সাথে সিকান্দার রাজার ১২৭ বলে ১১৭ রানের ইনিংস বাংলাদেশের বিপক্ষে হেসেখেলে জিতিয়েছে জিম্বাবুয়েকে। 

বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রো- প্রবাদটা খুব ভালো ভাবে মনে পরছে বাংলাদেশ দলের খেলা দেখে। টপ অর্ডার যখন দলকে সুবিধাজনক অবস্থানে রেখে আসেন তখন মিডল অর্ডার কতটা অসফলভাবে সেই ধারা ভাঙতে পারেন তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ বাংলাদেশের ইনিংস। ৪৫ বলে ৫০ করে অধিনায়ক তামিম যেভাবে শুরুটা করেছিলেন তাতে বাংলাদেশ সহজেই ৩০০ রান অতিক্রম করবার কথা। 

কিন্তু আনামুল হক বিজয়ের অসহায় রান আউটের পর রানরেটে ছেদ পরে অনেক। এরপর নাজমুল হোসেন শান্ত এবং মুশফিকুর রহিম পারেননি। মুশফিকুর রহিম আউট হয়ে যান মাত্র ২৫ রান করেই। শান্ত ৫৫ বল খেলে করেন মাত্র ৩৮। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও শুরুতে অনেক বেশি ধীরগতির খেলেছেন যে কারনে আফিফ হোসেনকেও অস্বস্তিতে দেখা গেছে অনেক। 

শেষে অবশ্য রান করাতে কিছুটা পুষিয়ে দিয়েছেন রিয়াদ। ৮৪ বলে ৮০ রান করেন তিনি। আফিফ হোসেন আউট হয়েছেন ৪১ বলে ৪১ রান। মিরাজের পকেটে মোটে ১৫ রান। বাংলাদেশ করতে পারে ২৯০ রান। যেটা অবশ্য শেষ পর্যন্ত আর রক্ষা করতে পারেনি বাংলাদেশকে। তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে জিতে ইতিমধ্যে ওয়ানডে সিরিজটাও নিজেদের করে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে