ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

৫৯ বল হাতে রেখে ৮ উইকেটের বিরাট জয় আফগানিস্তানের

এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে হেসেখেলে জিতেছে আফগানিস্তান

ডেস্ক রিপোর্ট

২৭ আগস্ট ২০২২, রাত ১০:৪৯ সময়

[ 20220827_224243.jpg ]

মাত্র ১০৬ রানের টার্গেট যে একেবারে মামুলি বানিয়ে ছাড়বেন আফগানিস্তানের ব্যাটাররা তা তো স্বাভাবিকই। দুই ওপেনার গুরবাজ এবং হজরতুল্লাহ্ জাজাইয়ের ব্যাটিং তান্ডবে আফগানিস্তান বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও রীতিমত ছেলেখেলা করেছে শ্রীলংকার বিপক্ষে। পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারেই আফগানরা তুলেছে ৮৩ রান। 

গুরবাজ এরপরই আউট হয়ে যান ১৮ বলে ৪০ রান করেই। জাজাই ২৬ বলে ৩৭ করেন। 

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলংকা তাদের নিয়মিত ওপেনার গুনাথিলাকাকে না পাঠিয়ে পাঠিয়ে দেই পাথুম নিসাঙ্কাকে। প্রথম ওভারেই আফগান ফাস্ট বোলার ফজল হক ফারুকীর বলে যেন দিশেহারা হয়ে পরলো লঙ্কানরা। টানা দুই আউটসুইং এরপর ইনসুইং ঠিকমত পড়তেই পারেননি কুশাল মেন্ডিস। এলবিডব্লুর আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলেও রিভিউ নিয়ে বাজিমাত করে আফগানিস্তান। পরের বলেই আবারো এলবিডব্লু আউট করেন ফজল হক ফারুকী। 

বিতর্কের শুরুটা পরের ওভারে। ডান হাতি ফাস্ট বোলার নাভিন উল হকের বলে পাথুম অফসাইডে কিছুটা জায়গা করে শট খেললেও ব্যাটে লাগেনি বলেই মনে হয়েছে। তবে আফগানদের জোড়ালো আবেদনে কট বিহাইন্ড আউট দেন আম্পায়ার। শ্রীলংকান ব্যাটসম্যান রিভিউ নিলে সেখানে আল্ট্রা এজে পরিস্কার কোন স্পাইক দেখা না যাবার পরও থার্ড আম্পায়ার সেটিকে আউট দিয়ে দেন। ব্যাটসম্যান থেকে শুরু করে, শ্রীলংকার ড্রেসিংরুমের প্রত্যেক সদস্য ক্ষোভ প্রকাশ করেন তখনই। 

মাঠের দর্শকদেরও অবাক আচরন করতে দেখা যায় জায়ান্ট স্ক্রিনে। টুইটার সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে আউটটিকে নিয়ে সমালোচনা চলছে জোরেশোরে। ভাষ্যকরও বলে উঠলেন, সম্ভবত ব্যাটসম্যানের সাথে এটি আনফেয়ার হয়েছে। 

বিতর্কিত এক আম্পায়ারিং দিয়েই শুরু হলো তবে এবারের এশিয়া কাপ! এরপর অবশ্য আরো ছেলেমানুষি রকমের আউট হয়েছে শ্রীলংকার ব্যাটসম্যানরা৷ তিনজন ফিরেছেন কোন রান না করেই। একের পর রান আউট আর ডট বলের মাঝে একমাত্র আলাদা ছিলেন রাজাপাকশে এবং করুনারত্নে। 

১০০ রানেরও কমে অলআউট হওয়ার সম্ভাব্যতা থেকে রক্ষা করেছেন করুনারত্বেই। ৩৮ বলে ৩১ রান করেই শ্রীলংকাকে এনে দেন ১০৫ রানের পুঁজি। রাজপাকশে করেন ৩৮ রান। ফজল হক ফারকী ১১ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ টি উইকেট। নবী নিয়েছেন ১ টি উহকেট৷ চার ওভারে মাত্র ১২ রান দিলেও কোন উইকেট পাননি রশীদ খান।