ক্রিকেট > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

আফগানদের কাঁদিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে পাকিস্তান

একইসাথে ফাইনাল সুনিশ্চিত হলো শ্রীলংকারও।

ডেস্ক রিপোর্ট

৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, রাত ১১:৩৫ সময়

[ Screenshot_2022-09-07-23-34-48-01_0b2fce7a16bf2b728d6ffa28c8d60efb.jpg ]

১৩০ রানের লক্ষ্যটা পাকিস্তানের জন্য খুব সহজই মনে হয়েছে এশিয়া কাপে শেষ কিছু ম্যাচের পরিসংখ্যান অনুযায়ী। তবে শারজাহ্ এর উইকেটে আফগানিস্তানের স্পিনারদের রেকর্ড ম্যাচে কিছু একটা ঘটার ইঙ্গিতও দিচ্ছিলো। পুরো এশিয়া কাপ জুড়েই অফ ফর্মে থাকা বাবর আজমকে ১ বলে ০ রানে আউট করে আফগানিস্তানকে খেলায় রাখেন ফজল হক ফারুকী। 

পাওয়ারপ্লেতেই দারুন ডিরেক্ট থ্রোতে ফাখার জামানকে রানআউট করেন নাজিবুল্লাহ জাদরান। এরপর রশীদ খান তুলে নেন গুরুত্বপূর্ণ মোহাম্মদ রিজওয়ানের উইকেট। ২৭ বলে ২০ রান করেন এই পাকিস্তানি ওপেনার। চাপে পড়া পাকিস্তানকে বাঁচাতে এরপরই ত্রাতা হয়ে আসেন শাদাব খান। ২৬ বলে ৩৬ রান শাদাব খানকে ফেরান দুনিয়া সেরা লেগ স্পিনার রশীদ খান। 

১৮ তম ওভারে দুই উইকেট নিয়ে আফগানিস্তানকে ম্যাচে ফেরান ফজল হক ফারুকী। শেষ দুই ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন তিন উইকেট হাতে রেখে ২১ রান। আসিফের হাতে ছক্কা খেলেও তার উইকেটও তুলে নেন বোলার ফরীদ। শেষ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন মাত্র ১ উইকেট হাতে রেখে ১১ রান। পরপর দুই ছক্কা হাঁকিয়ে সেই ম্যাচ শেষ করেন নাসিম শাহ্।

আফগানদের জন্য ম্যাচটা বাঁচা মরার। পাকিস্তানের বিপক্ষে হেরে গেলেই এশিয়া কাপ থেকে বিদায় হবে আফগানিস্তানের। একইসাথে দুই ফাইনালিস্টকেও পেয়ে যাবে এশিয়া কাপ। পাকিস্তান এবং শ্রীলংকা খেলবে ফাইনাল, এমন সমীকরণ এর ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ টস জিতে পাকিস্তানই। টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। 

ব্যাট করতে নেমে দারুন শুরু করে আফগানিস্তানের দুই ওপেনার রহমতুল্লাহ গুরবাজ এবং হজরতুল্লাহ্ জাজাই। ২৪ বলে ৩৬ রানের জুটি ভেঙে ফেলেন পাকিস্তানের পেসার হ্যারিস রউফ। এরপর আর কোন বড় জুটি গড়তে পারেনি আফগানিস্তান এমনকি কোন ব্যাটসম্যানই বেশি স্ট্রাইকরেটে ব্যাট করতেও পারেননি। 

ইব্রাহিমের ৩৭ বলে ৩৫, করিম জান্নাতের ১৯ বলে ১৫ মাঝে কিছু সময় উইকেট বাঁচিয়ে রাখে আফগানরা। শেষ দিকে রশীদ খানের ১৫ বলে ১৮ রানের উপর ভর করে ১২৯ রানের সংগ্রহ দাঁড় করাতে পারে আফগানিস্তান।