ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

বিশ্বকাপে পুরো ফিট বাংলাদেশ দল পাওয়া নিয়ে সংশয়

বিশ্বকাপ হতে বাকি নেই এক মাসও। এতটুকু সময়ে বাংলাদেশ খেলবে আটটি থেকে নয়টি ম্যাচ।

ওয়াহেদ মুরাদ

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, বিকাল ৭:২৫ সময়

[ IMG_20220916_192045.jpg ]

আরব আমিরাতে প্রস্তুতি ক্যাম্প করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সেখানে প্রস্তুতির পাশাপাশি দুইটি ম্যাচেও খেলবে বাংলাদেশ। সাধারনত আরব আমিরাতের গরম সবসময়ই বাংলাদেশ দলকে শারীরিক ভাবে দুর্বল করে ফেলে। বোলাররা এবং ব্যাটসম্যানদের ক্রাম্প হয় যেটা হার্মস্ট্রিং ইঞ্জুরীতেও রুপ নেয়। সুতরাং বিশ্বকাপ প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ দলকে এই প্রস্তুতি পর্বতে বেশ সতর্কই থাকতে হবে। 

এরপর ত্রিদেশীয় সিরিজে ফাইনাল না খেললেও বাংলাদেশকে খেলতে হবে কমপক্ষে চার ম্যাচ। ফাইনালে উঠতে পারলে ম্যাচ সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াবে ৫ টি তে। এরপর অফিসিয়াল বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে

বাংলাদেশকে নামতে হবে আরো দুইটি ম্যাচে। সব মিলিয়ে বাংলাদেশ দলকে খেলতে হবে কমপক্ষে ৮ ম্যাচ। বিশ্বকাপ ভেন্যু অস্ট্রেলিয়া পৌছানোর পুর্বে বাংলাদেশ সময় পাচ্ছে ২০ দিনের মত। 

এর মধ্যে বাংলাদেশ দল আরব আমিরাতে যাবে, দেশে ফিরবে এবং আবার নিউজিল্যান্ডে যাবে। সেখান থেকে অস্ট্রেলিয়া যাবে৷ এক মাসেরও কম সময়ে বাংলাদেশ দলকে বিমানে উঠতে হবে কমপক্ষে চারবার। সুতরাং বাংলাদেশ দলের সদস্যদের যাত্রা ক্লান্তিও থাকবে অনেক। 

এরমধ্যে আবার আট ম্যাচ খেলার ধকল পুষিয়ে টাইগারদের নামতে হবে অস্ট্রেলিয়াতে বিশ্বকাপ মিশনে। কাজটা যে খুব কঠিন তা হয়ত ভেবেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বাংলাদেশ দলের সাথে এর আগে কাজ করা জুলিয়ান কালফেতোর সাথে এ নিয়ে কথা হয়েছে ডেইলি স্পোর্টসবিডির। 

তিনি বলেন, " অবশ্যই এটা অনেক কঠিন, এক মাসের মত সময়ে চার-পাঁচবার বিমানে ওঠা আঁট-নয়টা ম্যাচ খেলা তো কম কথা না। আমার বিশ্বাস টিম ম্যানেজমেন্টও সবাইকে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলাবেন যাতে ক্রিকেটাররা ফিট থাকেন। শুনেছি ইঞ্জুরী কাটিয়ে প্রায় সবগুলো পেসারই এই বিশ্বকাপে তোমাদের ডাগআউটে থাকবে৷ এটা সুখবর, তবে ওদের যত্ন নিতে হবে। " 

সফরসূচীতে বাংলাদেশ দলের কেউ ইঞ্জুরীতে পরলে সেক্ষেত্রে স্ট্যান্ড বাই থেকে ক্রিকেটার নিতে পারবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড৷ অবশ্য আইসিসির নতুন নিয়ম অনুসারে টুর্নামেন্ট শুরুর এক সপ্তাহ আগ পর্যন্ত ইঞ্জুরী বাদেও স্কোয়াড পরিবর্তন করবার সুযোগ পাবে দলগুলো।