ফুটবল > আন্তর্জাতিক ফুটবল

বিশ্বকাপের ড্রেস রিহার্সালে মেসি-নেইমারের উল্টো পথে রোনালদো

তিন তারকার শেষ ফুটবল বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে এটি, বিশ্বকাপের আগে ড্রেস রিহার্সালটাও ভালোই কেটেছে বেশিরভাগেরই

ডেস্ক রিপোর্ট

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, দুপুর ১১:৮ সময়

[ InShot_20220928_110508542.jpg ]

বিশ্বকাপের ড্রেস রিহার্সেল হয়ে গেল বৈকি। সামনেই আসছে ফুটবলের সর্ব্বোচ্চ আসর ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২। মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে নামবার আগে প্রায় সবগুলো দেশই নিজেদের প্রস্তুতি স্বরুপ প্রীতি ম্যাচ খেলে নিয়েছে৷ আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল দুইটি করে ম্যাচ খেলেছে আর ইউরোপে চলছে নেশনস লিগ। 

বেশিরভাগ দেশই বিশ্বকাপের চূড়ান্ত জার্সি পড়েই মাঠে নেমেছে। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা রীতিমত উড়ছে। এই উড়ন্ত ফর্ম নিয়ে কাতার বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা দাবীদার এখন এই দুই লাটিন দল। ব্রাজিল দলের গভীরতা এবং আর্জেন্টিনার একতা দলদুটোকে বানিয়েছে অপ্রতিরোধ্য। 

ব্রাজিল উড়ছে, সেই সাথে উড়ছে নেইমারও। ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী স্পিড স্টার কাকা বলেছেন, ব্রাজিল দলটার নেতা অবশ্যই নেইমার। ব্রাজিলের এই দলের গভীরতার গুরুত্ব ইতিমধ্যে বোঝা যাচ্ছে সাম্প্রতিক ম্যাচগুলোতে। 

নেইমার এবং ভিনিসিয়াস জুনিয়র এর জুটি করে প্রতিপক্ষের রক্ষনভাগকে উড়িয়ে দেওয়া চোখে লেগেছে বেশ। প্রস্তুতি ম্যাচে ঘানা এবং তিউনিসিয়াকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছে সেলেসাওরা। পিএসজিতেই সাম্প্রতিক সময়ে দারুন ফর্মে আছেন নেইমার। ব্রাজিলে খেলছেন ফলস নাইনে, যা আরো অপ্রতিরোধ্য করে তুলছে নেইমারকে।

লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা গেল বছর দুইয়েক এর বেশি সময় ধরেই দারুন ফর্মে৷ টানা জয়ের পর  সর্বকালের রেকর্ডে দুইয়ে অবস্থান করছে দলটা। কোপা আমেরিকা এবং ফাইনালিসিমো জেতার পর আর্জেন্টাইন দলটা বিশ্বকাপের স্বপ্নে বিভোর।

বিশ্বকাপের আগের আর্ন্তজাতিক বিরতিতে জ্যামাইকা এবং হন্ডুরাসকে উড়িয়ে দিয়েছে স্রেফ। শেষ তিন ম্যাচে লিওনেল মেসি যেভাবে গোল করেছেন তা অবিশ্বাস্য। এই যেমন জ্যামাইকার বিপক্ষেই মাত্র তিন মিনিটে ২ গোল করে তাক লাগিয়ে দিলেন মেসি। সেই সাথে ফ্রি কিকে গোল করে মেসি বুঝিয়ে দিয়েছেন জাতীয় দলের হয়ে তিনি কতটা ভয়ংকর হতে পারেন। 

সেইদিক থেকে ভালো সময় যাচ্ছেনা পর্তুগাল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর৷ গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে গোল করতে পারছেননা। বলা যায় ভাগ্যটাও ঠিক পক্ষে যাচ্ছেনা রোনালদোর। স্পেনের বিপক্ষে অতি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে রোনালদো ছিলেন নিস্প্রভ, ম্যাচটাও হেরে নেশনস লিগ থেকে বাদ পড়ে গেছে লিসবনের পতাকা বাহীরা৷ 

ম্যানইউ এর হয়েও সময়টা ভালো যাচ্ছেনা রোনালদোর। এমনকি বদলি হিসেবেও নামতে হচ্ছে কখনো কখনো। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বকাপে কেমন করতে পারবেন তিনি তা নিয়ে কিছুটা সংশয় তো আছেই। একইভাবে ভালো সময় যাচ্ছেনা ফ্রান্স ও কিলিয়ান এমবাপ্পের ও। দল হিসেবে ফ্রান্স দারুন হলেও জিততে বেগ পেতে হচ্ছে দলটিকে।