ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

একই ধাঁচের নেইমার-এমবাপ্পেকে কিনে ‘বড় ভুল’ করেছে পিএসজি!

পিএসজির নতুন পরিচালকের সরল স্বীকারোক্তি।

ডেস্ক রিপোর্ট

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, রাত ৮:৪০ সময়

[ Picsart_22-09-30_20-36-59-337.jpg ]

পিএসজি নতুন পরিচালক লুইস ক্যাম্পোস মনে করে, অতীতের দলবদলের বাজারে কিলিয়ান এমবাপ্পে এবং নেইমারকে দলে ভেড়ানোটা পিএসজি বড় ভুল ছিলো। একই ধাঁচেরই দুইজন খেলোয়াড়কে দলে টানতে গিয়েই প্যারিসের ক্লাবটি নাকি প্রয়োজনীয় খেলোয়াড় কিনতে পারেনি বলে দাবি তার। 

সাম্প্রতিক সময়ে পিএসজির সেরা দুই তারকা নেইমার ও কিলিয়ান এমবাপ্পের মধ্যে দ্বন্ধ চরমে গিয়ে পৌছেছে। দুজনের সম্পর্ক এতটাই তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে যে, পেনাল্টি নিয়ে দুজনের ড্রেসিং রুমে হাতাহাতি করার ঘটনাও ঘটেছে! 

অথচ, এ দুজনকে দলে ভেড়াতে গিয়ে প্রচুর অর্থ বিনোয়োগ করেছে পিএসজি। ২০১৭ সালে দলবদলের বাজারে রেকর্ড ২০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে কাতালান ক্লাব বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে উড়িয়ে আনে পিএসজি।কিলিয়ান এমবাপ্পের পিছনেও প্যারিসের ক্লাবটি খরচ করেছে ১৮০ মিলিয়ন ইউরোর বেশি। 

দলের অন্যতম সেরা দুই ফুটবলারকে নিয়ে একই সঙ্গে কিনে পিএসজি বুদ্ধিমানের পরিচয় দেয়নি বলে স্বীকার করেছেন ক্যাম্পোস। 

ফরাসি লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নদের নতুন পরিচালকের মতে, নেইমার-এমবাপ্পেকে একসাথে কিনতে গিয়েই দলের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় খেলোয়াড় ভেড়াতে পারেনি পিএসজি। গতকাল (বৃহস্পতিবার) ‘রোথেন সেনফ্লাম’ পডকাস্টে এসব বলেছেন তিনি। 

“আমরা অতীতে একই জায়গার দুই খেলোয়াড়কে কিনে দিয়ে বড় ভুল করেছি।”

“ ট্রান্সফার উইন্ডোটি আমাদের জন্য মোটেও ভালো ছিলো না। কারণ,আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ভালো খেলোয়াড়ের অভাব রয়েছে এবং আমাদের অন্যান্য অবস্থানে খেলোয়াড়দের ওভারল্যাপ রয়েছে।”

মূলত, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের বিশাল স্বপ্ন নিয়ে অবিশ্বাস্য অর্থ ব্যয়ে নেইমার-এমবাপ্পেকে দলে ভেড়িয়েছিলো পিএসজি। কিন্তু ঘরোয়া ফুটবলে বেশ আধিপত্য দেখালেও তারা প্যারিসিয়ানদের ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের অধরা ট্রফি এনে দিতে পারেনি। ২০২০ সালে ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখে কাছে পরাজয় ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগে পিএসজির সেরা সাফল্য। 

পিএসজির হয়ে নেইমার এখন পর্যন্ত ১৫৫ ম্যাচে ১১১ গোল করেছেন। ২২৬ ম্যাচে কিলিয়ান এমবাপ্পের গোল সংখ্যা ১৮১টি।