ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

‘ভবিষ্যৎ মেসি-রোনালদো হবেন এমবাপ্পে-হ্যালান্ড’

এমবাপ্পে ও হ্যালান্ড হবেন পরবর্তী মেসি-রোনালদো।

ডেস্ক রিপোর্ট

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, রাত ১২:২৫ সময়

[ Picsart_22-09-30_00-21-55-330.jpg ]

ফুটবল ইতিহাসের সর্বকালের অন্যতম সেরা দ্বৈরথ হচ্ছে মেসি-রোনালদো। এ দুজনের মধ্যে কে সেরা- গত দুই দশক ধরেই এই বিতর্কই ছিল ফুটবলের অন্যতম আলোচিত বিষয়। 

মধ্য ত্রিশে থাকা দুই ফুটবল মহাতারকা পরিসংখ্যানেও একে অপরকে সমানতালে টেক্কা দিয়েছেন। কোথাও মেসির দাপট তো আবার কোথাও রোনালদোর শ্রেষ্ঠত্ব। নিজেদের এই দ্বৈরথে দীর্ঘ সময় কাউকেই ঘেঁষতে দেন নি তারা।

বস্তুত, ফুটবল ইতিহাসে মেসি-রোনালদোর অর্জন এতটাই সমৃদ্ধ যে দুই মহাতারকার জায়গা নেওয়া এখন শুধু কঠিনই নয়, কোনো কোনো ক্ষেত্রে অসম্ভবও বটে।

তবুও একটি প্রজন্মের বিদায়বেলায় পরের প্রজন্মের দিকে হাত বাড়াতেই হয়। খোঁজ করতে হয় নতুন কোন নক্ষত্রের। আর ভবিষ্যৎ ফুটবলের এই জায়গাটিই সম্ভবত নিতে যাচ্ছেন সময়ের সেরা দুই তরুণ ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপ্পে ও আর্লিং হ্যালান্ড।

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে সম্ভাবনাময়ী ফুটবলারে কথা উঠলেই এমবাপ্পে-হ্যালান্ডের নাম সবার আগে আসে। মাত্র উনিশ বছর বয়সেই বিশ্বকাপের শিরোপা জিতে নিজের সামর্থ্যে জানান দিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে।

দেশের ও ক্লাবের হয়ে গোলের বন্যা বয়ে দিতে ভালোই প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলেছেন আর্লিং হ্যালান্ডও। তাই, ইতিহাসের অন্যতম সেরা দুই ফুটবলারের উত্তরসূরী হিসেবে এদুজনের নামই বেশি উঠে আসছে। 

আলোচিত বিষয়টির সঙ্গে একমত পিএসজি ও লিভারপুলের সাবেক মিডফিল্ডার মোহামেদ সিসোকো। তার মতে, এমবাপ্পে ও হ্যালান্ডের বেশ সামর্থ্যে আছে মেসি-রোনালদোর পর্যায়ে যাওয়ার। খেলাধুলার তথ্য-পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ‘স্ট্যাটস পারফর্ম’-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এসব বলেন তিনি। 

“তারা অনেক গোল করছে। তারাও অন্য (শীর্ষ) ধাঁচের খেলোয়াড়। আমি মনে করি, এমবাপে শীর্ষমানের খেলোয়াড়, হলান্ডও তাই। তারা নিশ্চিতভাবে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও মেসির পর্যায়ে পৌঁছাতে পারবে বলেই মনে করি।”

গত কয়েক মৌসুমে ন্যায় চলতি মৌসুমেও দুর্দান্ত ফর্মে আছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। নতুন মৌসুমে ক্লাবের হয়ে ১৬ ম্যাচে ১৭ গোল করে ফেলেছেন। 

অবিশ্বাস্য ফর্মে আছে আর্লিং হ্যালান্ডও। জার্মান ক্লাব বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ছেড়ে ম্যান সিটিতে যোগ দিয়ে গোলে বন্যা বয়ে দিচ্ছেন তিনি। চলতি মৌসুমে সিটিজেনদের হয়ে নরওয়েজিয়ান তারকা ১০ ম্যাচে করে ফেলেছেন ১৪ গোল।