ক্রিকেট > বাংলাদেশের ক্রিকেট

ভারতের কাছে হারলেও ‘খুশি’ সাকিব

কোহলিদের বিপক্ষে আবারও তীরে এসে তরী ডুবলেও দলের খেলায় গর্বিত বাংলাদেশ অধিনায়ক।

ডেস্ক রিপোর্ট

২ নভেম্বর ২০২২, রাত ১১:২৫ সময়

[ Screenshot_20221102-232502_Gallery.jpg ]

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চলতি আসরে দুটো ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। আর দুটো ম্যাচই ছিলো বেশ রোমাঞ্চ আর উত্তেজনায় ভরপুর। 

আসরের নিজেদের চতুর্থ ম্যাচেও জয়ের খুব কাছে চলে গিয়েছিলো টাইগাররা। ভারতের বিশাল লক্ষ্যে তাড়া করতে নেমে লিটন কুমার দাসের বিস্ফোরক এক ইনিংসে একটা সময় জয়ের স্বপ্নও দেখেছিলো দলটি।

কিন্তু, শেষ পর্যন্ত জিততে পারেনি সাকিব আল হাসানের দল। জবাব দিতে নেমে যেভাবে দুর্দান্ত শুরু করেছিলো টাইগাররা, লিটন কুমার দাসের আউটের পরই তাতে খেই হারিয়ে ফেলে। ফলে, আরও একবার শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের তীরে এসে তরী ডুবলো। 

আজ (বুধবার) অ্যাডিলেড ওভালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের রোমাঞ্চকর ম্যাচে ডাকওয়ার্থ-লুইস-স্টার্ন পদ্ধতিতে ৫ রানে জিতেছে ভারত। কোহলি ও লোকেশ রাহুলের ফিফটিতে ১৮৪ রান করে দলটি। পরে বৃষ্টির বাগড়ায় ১৬ ওভারে ১৫১ রানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ থামে ১৪৫ রানে। 

বিশ্বকাপে টানা তৃতীয় জয়ের খুব কাছে এসে হারলেও দলকে নিয়ে খুশি ও গর্বিত সাকিব আল হাসান। কঠিন চ্যালেঞ্জ তাড়া করতে নামলেও উড়ন্ত শুরুর পর কখনওই বাংলাদেশের কাছে আর ম্যাচটি কঠিন মনে হয়নি টাইগারদের। এভাবে শুরু করেও জিততে না পারাটা দুর্ভাগ্য বললেন টাইগার কাপ্তান। ম্যাচশেষে সাকিব আল হাসান বলেছেন,

“যে অবস্থায় আমরা ছিলাম কোনো রানটাই কঠিন মনে হচ্ছিল না। আপনি যদি দেখেন ৭ ওভার শেষে ৭০ কাছাকাছি রান, বিনা উইকেটে। এরকম একটা দিনে প্রতিদিন আপনি গ্রহণ করবেন। এবং আপনি আপনার দলকে ব্যাক ও করবেন যে জিততে পারে। আমি যেটা বললাম যে হ্যাঁ আমরা জিততে পারিনি দুর্ভাগ্যজনক ভাবে। আমি খুবই খুশি, এবং গর্বিত সবাই যেভাবে চেষ্টা করেছে মাঠে।”

রান তাড়ায় লিটন কুমার দাসের ৬০ রানে পাল্টা জবাব ভালোই দেয় বাংলাদেশ। যদিও, বৃষ্টির পর ঘুরে যায় ম্যাচের মোড়। তবে, লিটনের প্রশংসা করতে ভুলেননি সাকিব। বাংলাদেশ অধিনায়ক মনে করেন, লিটনের ওয়ানডে ও টেস্টে ভালো খেলার আত্মবিশ্বাসটা টি-টোয়েন্টিতেও এসেছে।

“এক বছর ঠিক না আরো বেশি দিন। লাস্ট ২-৩ বছর ধরে ও খুব ভাল খেলছে। টি-টোয়েন্টি হয়ত বছরটা খুব ভাল খেলছে। বাট আপনি যদি ওর ওয়ানডে বা টেস্ট দেখেন ওর শেষ দুই বছর খুবব ভালো খেলছে।” 

“এখন ওই আত্মবিশ্বাসটাই আমার যেটা মনে হয় টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও এসেছে। এবং ও জানে যে কিভাবে রান করতে হয়। আজকে ওর জন্য বড় একটা সুযোগ ছিল, যেভাবে আমরা ওকে রেট করছিলাম এবং আমরা মনে করি ও যে ধরণের খেলোয়াড় ওর ক্যাপাবল অনুযায়ী খেলেছে। এমন না যে আউট অব দ্য বক্স না আমরা সবাই জানি ও এমন ইনিংস খেলার জন্য ক্যাপাবল।”