ফুটবল > ক্লাব ফুটবল

‘৫৭৬০ মিনিটের ফুটবলের জন্য- ১৫ হাজার মৃত্যু: আপনাদের লজ্জা হওয়া উচিত’

বিশ্বকাপ ‘বয়কটের’ ডাক জার্মান বুন্দেস লিগায়।

ডেস্ক রিপোর্ট

৬ নভেম্বর ২০২২, রাত ১:২৬ সময়

[ 20221106_005558.jpg ]

দরজায় কড়া নাড়ছে কাতার বিশ্বকাপ। আগামী ২০ নভেম্বর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে অনুষ্ঠিত হবে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। সময়ের হিসাবে বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র ১৪ দিন। 

সময় যত ঘনিয়ে আসছে, বিশ্বকাপ বয়কটের ডাক বাড়ছেই। কাতার বিশ্বকাপ আয়োজন করতে গিয়ে চরম মানবাধিকা লঙ্ঘণ করেছে- অভিযোগ অনেক আগে থেকেই উঠেছে। প্রচুর শ্রমিক মৃত্যুবরণ করেছে বিশ্বকাপের স্থাপনা নির্মাণ করতে গিয়ে। 

বিশাল অভিযোগ রয়েছে, কাতার শ্রমিকদের পারিশ্রমিকসহ তাদের ন্যায্য সুযোগ-সুবিধা সঠিকভাবে পরিশোধ করেনিকরোনা মহামারির মধ্যেও যখন সবকিছু থমকে ছিল, তখনো বন্ধ ছিল না কাতারের স্টেডিয়াম নির্মাণ কাজ। 

২০২১ সালে ব্রিটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, স্টেডিয়াম তৈরি করতে গিয়ে দেশটিতে অন্তত সাড়ে ছয় হাজার শ্রমিক মারা গেছেন। এর মধ্যে সরাসরি স্টেডিয়াম নির্মাণকাজে অংশ নেয়া ১২ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। 

বাকস্বাধীনতা হরণ করতে দেশটি আগের চেয়েও কড়া হয়েছে। আবার স্টেডিয়াম নির্মাণকাজ শেষে প্রায় ৪৮ হাজার শ্রমিককে করা হয়েছে ছাঁটাই। এসব অভিযোগে কাতাকে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী দেশ হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

এরপরই কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে ইউরোপের দেশগুলি আপত্তি তুলতে থাকে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়, এমন দাবি তুলে সেখানে বিশ্বকাপ আয়োজন করায় এখন ফিফার ওপর বেশ ক্ষুব্ধ অনেকেই। ইউরোপে ধীরেধীরে জোড়ালো হচ্ছে ‘কাতার বিশ্বকাপ বয়কটের’ ডাক। বাড়ছে রাজনৈতিক চাপও।

যেখানে সামনের সারিতে নেতৃত্ব দিচ্ছে জার্মানি। দেশটি শুরু থেকেই কাতারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে সোচ্চার রয়েছে। এবার তারই অংশ হিসেবে দেশটির শীর্ষ ঘরোয়া লিগ প্রতিযোগিতায় রব উঠেছে ‘বিশ্বকাপ বয়কটের ডাক’।

আজ (শনিবার) জার্মান বুন্দেস লিগায় হেরথা বার্লিনে মাঠে নামে শিরোপাধারী বায়ার্ন মিউনিখ। ম্যাচটি ৩-২ গোলে জিতেছে বাভারিয়ানরা। বায়ার্নের হয়ে জোড়া গোল করেছেন চুপো-মোতিং। একটি গোল করেছেন জামাল মুসিয়ালা। আর স্বাগতিকদের হয়ে দুটি গোল করেছেন লুকেবাকিও এবং সেলকা। 

তবে, বার্লিনে মাঠে এদিন বায়ার্নের জয় ছাপিয়ে গেছে স্টোডিয়াম জুড়েই ‘কাতার বিশ্বকাপ বয়কটের’ বিভিন্ন ব্যানার ও ফেস্টুন। কাতারের মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে বার্লিনের মাঠে ‘বিশ্বকাপ বয়কট’, ‘৫৭৬০ মিনিটে ফুটবলের জন্য- ১৫ হাজার মৃত্যু: আপনাদের লজ্জা হওয়া উচিত’, ‘ব্ল্যাটারের শাস্তি চাই’ এমন বিভিন্ন রকম ব্যানারে প্রতিবাদ জানায় সমর্থকরা। 

এদিকে, কাতারকে নিয়ে বিশ্বব্যাপি এই রাজনৈতিক খেলা নিয়ে ওয়াকিবহাল ফিফাও। এ কারণে বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক দুই সপ্তাহ আগে ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো অংশগ্রহণকারী ৩২টি দেশকে সতর্ক করে দিয়েছেন রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে।

ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফ্যান্তিনো অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে আধুনিক সময়ের সবেচেয় বেশি রাজনৈতিক প্রভাবাধীন বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিতে অনুরোধ জানিয়েছেন। তবে, তারা যেন বিশ্বকাপে এসে রাজনীতি নয়, খেলার দিকেই সবচেয়ে বেশি মনযোগ দেয়।

কাতার বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন ফিফা সভাপতি। সেখানেই- ‘ফুটবলকেই সব কিছুর উর্ধ্বে তুলে ধরুন’ শিরোনামে ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনো এবং সেক্রেটারি ফাতিমা সামুরা বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণার আগে এ আহ্বান জানান।