ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ

‘গরীব’ বলে গার্দিওয়ালাকে নেইমারদের কোচ বানাতে পারল না ব্রাজিল

গার্দিওয়ালার আকাশচুম্বী বেতন দিতে পারবে না ব্রাজিল।

ডেস্ক রিপোর্ট

১৭ নভেম্বর ২০২২, রাত ৯:৬ সময়

[ Screenshot_20221117-210059_Gallery.jpg ]

আসন্ন কাতার বিশ্বকাপের পরই আর ব্রাজিলের কোচ হয়ে থাকছেন না, সেটা নিজেই জানিয়ে দিয়েছেন তিতে। তাহলে তিতে পর ব্রাজিলের কোচ হবেন কে? কে ধরবেন ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সফল দলটির হাল? এটা দীর্ঘদিন ধরেই নিয়েই চারদিকে চলছিলো নানামুখী আলোচনা। 

সে আলোচনা বাড়তি মাত্রা পায় স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কার  করা এক প্রতিবেদনের কারণে। সেখানে বলা হয়েছে যে,  তিতের পর ব্রাজিলের কোচ হিসেবে সিবিএফ ইংলিশ ক্লাব ম্যান সিটির কোচ পেপ গার্দিওলাকে দারুণ পছন্দ করেছে।  তিতের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার জন্য লাতিন আমেরিকা দেশটি নাকি স্প্যানিশ কোচের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।

যদিও পেপ গার্দিওলা নিজে এসব খবরকে স্রেফ গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন, তবে ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশনেরন(সিবিএফ) ভাইস প্রেসিডেন্ট খবরটির সত্যতা নিশিত করেছেন। 

ফ্রান্সিসকো নভেলেট্টো জানালেন, সবকিছু ঠিকঠাক হলেও পেপ গার্দিওলার আকাশচুম্বী বেতনের জন্যই নেইমারদের কোচ হওয়ার চুক্তিটি আলোর মুখ দেখেনি। সিবিএফ কর্তার এমন কথাতেই বুঝা যায় অর্থের অভাবেই সম্ভবত ম্যান সিটি কোচকে নিজেদের কোচ বানাতে পারেনি ব্রাজিল!

“আমরা পেপ গার্দিওলার সঙ্গে আলোচনা করেছি। এবং তিনি ব্রাজিলের কোচিংয়ের দায়িত্ব গ্রহণ করতে সম্মতি হয়েছেন। তবে, বার্ষিক ২৪ মিলিয়ন ইউরো বেতন অবিশ্বাস্য।”

নভেলেট্টো অবশ্য ভুল বলেননি। ম্যানচেস্টার সিটিতে পেপ গার্দিওলা বার্ষিক ২৪ মিলিয়ন ইউরো বেতন পান। আর সেটা ব্রাজিলের জন্য ঠিক কতটা নাগালের বাহিরে তা বুঝা যায় নেইমারদের বর্তমান কোচ তিতের বেতন কত দেখেও। 

২০১৬ সালে করিন্থিয়ান্স ছেড়ে ব্রাজিল জাতীয় দলের দায়িত্ব গ্রহণ করেন তিতে। ছয় বছর হয়ে গেল সেলেসাওদের কোচ হয়ে আছে তিনি। নেইমারদের কোচিং করিয়ে ৬১ বছর বয়সী বেতন নেন ৪.৮ মিলিয়ন ইউরো। ব্রাজিলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেতনভুক্ত কোচের রেকর্ডও এটাই।