ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ

‘ভুল শুধরে’ সিংহাসন পুনরুদ্ধার করতে চায় ব্রাজিল

রাশিয়া বিশ্বকাপের ভুল এবার আর করতে চান না ব্রাজিল কোচ।

ডেস্ক রিপোর্ট

২১ নভেম্বর ২০২২, দুপুর ১২:৫৯ সময়

[ 20221121_115819.jpg ]

২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলেছিল ব্রাজিল। দারুণ একটি দল নিয়ে আসরের টপ ফেভারিট দল ছিলো সেলেসাওরা। কিন্তু, নেইমারদের সেই স্বপ্নের সমাধি দেয় বেলজিয়াম। আশা জাগিয়েও কেভিন ডে ব্রুইনেদের কাছে হেরে আসর শেষ আটেই ইতি ঘটে যায় নেইমারদের বিশ্বকাপ মিশন। 

চার বছর আগের সেই ব্রাজিল এবার যেন আরও পরিণত। গত কয়েক বছর ধরেই লাতিন আমেরিকায় আধিপত্য বজায় রাখছে দলটি। রাশিয়া বিশ্বকাপের তুলনায় এবারও পেলে দেশটি তারুণ আর অভিজ্ঞতার মিশেলে হট ফেভারিট। অনেকেই এবারও তিতের দলের বিশ্বকাপ জেতার ভালো সম্ভাবনা দেখছেন। 

নিজের দল সম্পর্ক ভালোই অবগত আছেন ব্রাজিলের কোচ অভিজ্ঞ তিতে। টানা ৬ বছর নেইমারদের কোচিং করিয়ে এবার বেশ আত্মবিশ্বাসী তিনি। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভুল শুধরে হলুদ জার্সিধারীদের ফের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট এনে দিতে বদ্ধপরিকর তিতে। ব্রিটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ানকে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। 

“আমরা রাশিয়ার পরে বুঝতে পেরেছিলাম আমাদের দলে ব্যাপক পরিবর্তন আনতে হবে। আমরা টুর্নামেন্টে আগে দানি (আলভেস) এবং রেনাতো (অগাস্টো)কে হারিয়েছিলাম এবং চোটের কারণে নেইমার নিজেও পুরো ফিট ছিলেন না।  তাই আমাদের টুর্নামেন্টের সময় একটি নতুন দল তৈরি করতে হয়েছিল। 

“ কিন্তু, এবার এটি সম্পূর্ণ ভিন্ন। আমরা যদি একজন খেলোয়াড়কেও হারাই, তবে আমরা এটিকে কীভাবে মোকাবেলা করতে পারি তা আমরা আরও ভাল জানি। ২০১৭ সালে আমাদের ভিতরের খেলোয়াড়দের জানার জন্য পর্যাপ্ত সময় ছিল না। কিন্তু এখন আমরা তাদের সাথে সেই সময় পেয়েছি।”

২০০২ সালের পর বিশ্বকাপে বড় কোন সাফল্যে নেই ব্রাজিলের। গত চারবারের মত এবারও প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি বিশ্বকাপ পুনরুদ্ধারে মুখিয়ে আছে। নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধার করতে সর্বোচ্চ কাজটাই করার কথা জানালেন তিতে। হার বা জিতলেও ব্রাজিল কোচ চান শান্তি। 

“ আমরা জিতি বা হারি। তবে আমি শান্তিতে থাকতে চাই। এটাই আমার বড় চাওয়া। এমন কিছু জিনিস আছে যা আমি নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না। আমি আমার সেরা কাজ করতে চাই এবং শান্তিতে থাকতে চাই। আমি নিশ্চিত, এবার এটি করতে পারব।"

আগামী ২৪ নভেম্বর সার্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হবে ব্রাজিলের। ‘জি' গ্রুপে তিতের দলে বাকি প্রতিপক্ষ হচ্ছে সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুন।