ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ

রোমাঞ্চ ছড়িয়ে সেনেগালকে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুরু কমলা বিপ্লব

কষ্টের জয়ে বিশ্বকাপ শুরু ডাচদের।

ডেস্ক রিপোর্ট

২২ নভেম্বর ২০২২, রাত ১২:১৯ সময়

[ 20221122_000449.jpg ]

বিশ্বকাপে আগে কখনোই গ্রুপপর্বে আফ্রিকার কোন দলের কাছে হারেনি নেদারল্যান্ডস। অন্য দিকে সেনেগালও বিশ্বকাপে দু আসর খেলে কখনও ইউরোপিয়ান দলের কাছে হারেনি। কাতার বিশ্বকাপে দু'দলের লড়াইয়েও যেন সেটাই দেখা গেল। 

বিশ্ব মঞ্চে ‘এ’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে। শক্তিশালী নেদারল্যান্ডন্সের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলেছে সেনেগাল। গোছানো খেলায় বেশ কিছু গোলে সুযোগও পেয়েছিলো তারা। তবে, তা ঠিকঠাক কাজে লাগাতে পারেনি আফ্রিকার দেশটি।

অন্যদিকে, ম্যাচের বেশিরভাগ সময় নিজেদের নামের প্রতি খুব সুবিচার করতে না পারলেও শেষদিকে নিজেদের কাজটুকু ঠিকঠাক করে জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে ডাচরা। স্বস্তির জয়ে আসর শুরু করেছে ফন খালের দল। 

আজ (সোমবার) আল থুমামা স্টোডিয়ামে বিশ্বকাপের ম্যাচটি ২-০ গোলে জিতেছে নেদারল্যান্ডস। ডাচদের হয়ে দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে গোল করে পার্থক্য গড়ে দিয়েছেন কোডি হাকপো ও ডেভি ক্লাসেন। 

দোহায় দুদলের লড়াই হয়েছে সেয়ানে সেয়ানে। যদিও পুরো ম্যাচে বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিলো নেদারল্যান্ডস। ম্যাচে ৫৪ শতাংশ বল নিজেদের পায়ে রাখে ডাচরা।

তবে, গোলমুখে শট নেওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে ছিলো সেনেগাল। পুরো ম্যাচে ১৫টি শট নিয়ে ৪টি লক্ষ্যে রাখে তারা। বিপরীতে, ফন খালের দল ১০ শটের ৩টি লক্ষ্যে রাখতে পারে। 

আক্রমণ প্রতি আক্রমণে দুদলের লড়াইয়ে প্রথমার্ধে বলার মতো সহজ সুযোগ পেয়েছিলো কেবল ডাচরা। তবে, গোল করার সহজ সুযোগও হাতছাড়স করেন মিডফিল্ডার ফ্রাংকে ডি ইয়ং। এতে প্রথমার্ধের খেলাও গোলশূন্য সমতায় শেষ হয়।

বিরতির পর নেদারল্যান্ডসের চেয়ে আক্রমণ বেশি করেছে সেনেগালই। কিন্তু গোলের দেখা পায়নি সাদিও মানেহীন আফ্রিকান দেশটি। 

উল্টো শেষ দিকে দুই গোল করে ম্যাচটি নিজেদের করে নিয়েছে ডাচরা। ম্যাচের ৮৪তম মিনিটে প্রথম গোলটি করেন কডি হাকপো। গোলটির জোগানদাতা ছিলেন বার্সা তারকা ডি ইয়ং।

যোগ করা সময়ের শেষ মুহূর্তে আরো একটি গোল পায় নেদারল্যান্ডস। সেই গোলটি এসেছে ডেভি ক্লাসেনের পা থেকে।