ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ

বিশ্বকাপে ম্যারাডোনা আমাদের সঙ্গে-ই থাকবেন: মেসি

যেখানেই থাকুক না কেন, তিনি দলে সঙ্গেই থাকবেন।

ডেস্ক রিপোর্ট

২২ নভেম্বর ২০২২, দুপুর ১:২৩ সময়

[ Screenshot_20221122-131759_Facebook.jpg ]

ফুটবল বিশ্বকাপ মানেই ছিলো কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনার অবাধ বিচরণ। চোখে কালো চশমা, মুখে চুরুট- গাড়ি থেকে নামতেই নিরাপত্তারক্ষী দলের ভিড় ঠেলে পথ বের করা। বান্ধবীকে পাশে নিয়ে খেলা দেখতে এসে কখনও আনন্দে মেতে ওঠা, কখনও হতাশায় হাত-পা ছোড়া। বিশ্বকাপে গত কয়েক দশকের পরিচিত দৃশ্য ছিলো এটাই।

সেই ম্যারাডোনার এবার আর নেই। মৃত্যু নামক অমোঘ সত্যের প্রাচীর পেরিয়ে দুনিয়ার সব হিসেবের ঊর্ধ্বে উঠে গেছেন বছর দুয়েক আগে। এবারের কাতারে আসন্ন বিশ্বকাপটা তাই নিয়ে আসবে একটা ভিন্নতাই। বিশ্বকাপটা চলবে, কিন্তু তাতে থাকবে না ফুটবলের সবচেয়ে বর্নিল চরিত্রের উপস্থিতি, কথা বলবেন না লিওনেল মেসি আর তার দল নিয়ে!

আজ (মঙ্গলবার) কাতার বিশ্বকাপের মিশন শুরু হবে মেসিদের। বিকালে রাজধানী দোয়ার দৃষ্টিনন্দন লুসাইল স্টোডিয়ামে সৌদি আরবের বিপক্ষে মাঠে নামবে তারা। বাংলাদেশ সময় চারটায় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। 

বিশ্বকাপ পুনরুদ্ধারের অভিযান শুরুর আগে লিওনেল মেসি কথা বলেছেন ফিফার সঙ্গে। সেখানেই স্বদেশী কিংবদন্তিকে নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। আর্জেন্টাইন অধিনায়ক জানিয়ে দিয়েছেন, যেখানে থাকুন দিয়েগো না কেন এবারও ম্যারাডোনা তাদের সঙ্গে থাকবেন। 

গ্যালারিতে তাঁকে (ম্যারাডোনা) না দেখাটা হবে অদ্ভুত অনুভূতি। তাঁকে দেখে দর্শকদের উন্মাদনাও দেখা যাবে না। আসলে ম্যারাডোনার না থাকায় অনেকটাই অন্যরকম লাগবে। তবে আর্জেন্টিনাকে তিনি ভালোবাসতেন। সব সময়ই দলের পাশে থেকেছেন। যেখানেই থাকুক না কেন, তিনি দলে সঙ্গেই থাকবেন।”

গত আড়াই বছর ধরেই দুর্দান্ত ফর্মে আছে আর্জেন্টিনা।  নিজেদের সবশেষ ৩৬ ম্যাচ অপরাজিত আছে দলটি। নিজেদের এমন নজরকাঁড়া পারফরম্যান্সের কৃতিত্ব কোচ লিওনেল স্কালোনিকে দিলেন মেসি। সাতবারের বর্ষসেরা ফুটবলারের দাবি, তিনিই পুরো দলকে একতাবদ্ধ করতে পেরেছেন।

“শুরু থেকেই সে পুরো দলকে শক্তিশালী ও একতাবদ্ধ করায় নজর দিয়েছে। দল হিসেবে আর্জেন্টিনার এই পারফরম্যান্সের পেছনে তার অবদান সবচেয়ে বেশি। ম্যাচের পর ম্যাচ সে দেখিয়েছে সে কতটা ভালো কোচ। এত দিন ধরে আমরা হারি না, এটা পুরোটাই তাঁর কৃতিত্ব।”