ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ

বিশ্বকাপের ফাইনালে মেসির আর্জেন্টিনা

বিশ্বকাপ ফাইনালে উঠে গেলো মেসির আর্জেন্টিনা

ডেস্ক রিপোর্ট

১৪ ডিসেম্বর ২০২২, রাত ৩:১ সময়

[ 20221214_030025.jpg ]

লিওনেল মেসি! লিওনেল মেসি!! লিওনেল মেসি!!! ২০১৪ সালের পর আবারো বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলো লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা৷ কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে মেসিরা নামবে বিশ্বকাপ জেতার লক্ষ্য নিয়ে। মেসির সুবর্ন সুযোগ বিশ্বকাপ উচিয়ে ধরার। 

শুরুর পেনাল্টি থেকেও গোল পেলেও আর্জেন্টিনার তৃতীয় গোলে মেসির অ্যাসিস্ট চোখে লেগে থাকার মত। ডানপাশ থেকে বল নিয়ে প্রায় ২০ মিটার টেনে মেসি যেভাবে বলটাকে নিয়ে শেষ পর্যন্ত গেলেন আর দারুন অ্যাসিস্টকে তুলির আচড় দিয়ে জুলিয়ান আলভারেজ ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করলেন তা ছিল অবিশ্বাস্য। 

ম্যাচের শুরুতে চাপে ছিল আর্জেন্টিনাই। ক্রোয়েশিয়ার দারুন পাসিং ফুটবলে কিছুটা এলোমেলো মনে হয়েছে আলবিসেলেস্তেদেরই৷ মেসিদের ম্যাচে ফিরতে সময় লেগেছে দশ মিনিটের মত। এগারো মিনিটের মাথায় ডি পলের দেওয়া একটি পাসে লিওনেল মেসি দুইজনকে কাটিয়ে ডিবক্সে বল থ্রু করলেন তখন থেকেই শুরু আর্জেন্টিনার মূল আক্রমন। 

এগারো মিনিটের ঐ আক্রমনে আর্জেন্টিনা গোল করতে পারেনি। ঠিক ৩৩ মিনিটের মাথায় মেসির বাড়িয়ে দেওয়া বলে জুলিয়ান আলভারেজ বল নিয়ে একা পেয়ে যান গোলকিপারকে। গোলকিপারের বাঁধায় জুলিয়ান পড়ে গেলে রেফারি পেনাল্টির সংকেত দেন। সেখান থেকে গোল করেন লিওনেল মেসি। 

বিশ্বকাপের পঞ্চম গোল করে মেসি ছুঁয়ে ফেলেন এমবাপ্পেকে। এরপর ৩৯ মিনিটে জুলিয়ান আলভারেজ মাঝমাঠ থেকে যে দৌড়ে গোলটা করেন তা হতে পারে আর্জেন্টিনার এই বিশ্বকাপেরই সেরা গোল। ২-০ গোলের লিড নিয়ে আর্জেন্টিনা বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা৷ 

বিরতির পর ৬৯ মিনিটে আবারো মেসি ম্যাজিক। মাঝ মাঠের একটু সামনে থেকে বল পেয়ে মেসি কাটিয়ে নিয়ে যান ডি বক্সের শেষ লাইন পর্যন্ত।সেখান থেকে মেসির দারুন অ্যাসিস্টে আবারো গোল করেন জুলিয়ান আলভারেজ। ৩-০ গোলের লিডই আর্জেন্টিনা শেষ পর্যন্ত টিকিয়ে রাখে।